BMBF News

উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে দুমকীতে প্রচার প্রচারণায় ব্যস্ত কাওসার আমিন হাওলাদার

মেহেদী হাসান, পটুয়াখালী জেলা প্রতিনিধিঃ

 

আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে পটুয়াখালীর দুমকীতে ইতিমধ্যেই সম্ভাব্য প্রার্থীদের মধ্যে দৌড়ঝাঁপ শুরু হয়ে গেছে। নির্বাচন কমিশনের প্রকাশিত তালিকা মতে তৃতীয় ধাপে অর্থাৎ মে মাসে অনুষ্ঠিত হতে পারে দুমকী উপজেলা পরিষদ নির্বাচন। ইতিমধ্যেই দুমকীতে সম্ভাব্য প্রার্থীরা জনগণের কাছে সমর্থনের পেতে যোগাযোগ ও প্রচার প্রচারনা চালিয়ে যাচ্ছেন।

দুমকীতে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হিসেবে ইতিমধ্যেই আলোচনায় উঠে এসেছেন ইউরোপের দেশ মাল্টা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও “হাওলাদার ফাউন্ডেশন”র চেয়ারম্যান কাওসার আমিন হাওলাদার। উপজেলার বিভিন্ন এলাকার জনসাধারণের সাথে যোগাযোগ ও মতবিনিময় চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি। তার প্রতিষ্ঠিত “হাওলাদার ফাউন্ডেশন” এর উদ্যোগে বিভিন্ন মসজিদ, মাদ্রাসা, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, সামাজিক সংগঠনে সহায়তা ও অনুদান দিয়ে সাধারনের মনে স্থান করে নিচ্ছেন তিনি। এছাড়াও অসহায় গৃহহীনদের বাসস্থানের ব্যবস্থা করা ও অসুস্থদের চিকিৎসা সহায়তা ও চলতি বছরের শীত মৌসুমে প্রায় ৭ হাজার শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ করে আলোচনায় উঠে এসেছেন উপজেলার মুরাদিয়ার কৃতি সন্তান কাওসার আমিন হাওলাদার।

 

উপজেলার মুরাদিয়া ইউনিয়নের সন্তোষদি গ্রামের এক মধ্যবিত্ত পরিবারে জন্ম গ্রহন করেন কাওসার আমিন হাওলাদার। তার বাবার নাম মরহুম ফজলুর রহমান হাওলাদার। জীবন জীবিকার তাগিদে ইউরোপের দেশ মাল্টাতে প্রায় ২১ বছর আগে পাড়ি জমায় জীবন যুদ্ধে হার না মানা এ সৈনিক। গুটিকয়েক সফল মানুষদের মধ্যে অন্যতম কাওসার আমিন হাওলাদার ।
২০১২ সালে মাল্টায় ” সুরুচি ইন্ডিয়ান রেস্টুরেন্ট” দিয়েই তার প্রথম ব্যবসা শুরু করেন। এ ব্যবসায় তার ভাগ্য বদলে যায়। যা ২০১৫/২০১৭/,২০১৮/২০১৯/২০২০/২০২১/২০২২ সালে পুরস্কার পেয়েছেন মাল্টা সরকারি সংগঠন থেকে। বাংলাদেশসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মানুষের কাছে ব্যাপক জনপ্রিয়তা রয়েছে এ রেস্টুরেন্টের। এছাড়াও মাল্টাতে তার বেশ কয়েকটি ব্যবসা রয়েছে।
ব্যবসার পাশাপাশি সামাজিক কার্যক্রমের সঙ্গেও জড়িত তিনি । অনেক ইচ্ছা দেশের জন্য ও দেশের মানুষের জন্য কিছু করার।২০১৩ সালে তিনি মাল্টাতে বাংলাদেশি একটা কমিউনিটি প্রতিষ্ঠা করেন । কমিউনিটি প্রতিষ্ঠা করার প্রধান উদ্দেশ্য ছিল বাংলাদেশিদের জন্য কাজ করা। এছাড়াও কয়েক হাজার বেকার যুববকে ইউরোপে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করেছেন বলে জানান তিনি।

মাল্টাতে আওয়ামী লীগের কমিটি গঠনেও তার অনেক অবদান রয়েছে। তিনি মাল্টা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান কমিটির সভাপতি পদে আছেন। মাল্টাতে বাংলাদেশিদের বিভিন্ন সেবামূলক কাজে সবসময় তিনি নিজেকে নিয়োজিত রাখেন। মাল্টা ছাড়া ও বাংলাদেশে বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি ।
তিনি বলেন, মধ্যবিত্ত পরিবারে জন্ম আমার। জীবন যুদ্ধে এক কঠিন বাস্তবতার মুখোমুখি হয়ে সফল হয়েছি। আমার উপার্জিত আয়ের মধ্যে একটি অংশ হাওলাদার ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে মানুষকে সহায়তা করে আসছি। সাধারণ ঘরে জন্ম বিধায় সাধারণ মানুষের কষ্ট বুঝি। তাই বাকি জীবন জনগনের সেবা করে বাঁচতে চাই।

Leave A Reply

Your email address will not be published.