BMBF News

বাংলাদেশের পাবলিক ট্রান্সপোর্টে যোগ হলো একটি নতুন মাত্রা, টাটা মটরস উদ্বোধন করলো LPO 1616 বাস চেসিস

৪১
নিজস্ব প্রতিবেদক :

 

নতুন এই বাস চেসিস দেবে সেরা পারফরম্যান্স, আরামদায়ক ভ্রমণের অভিজ্ঞতা এবং সহজে বাসের মালিক হবার দুর্দান্ত সুযোগ।

ঢাকা, ১৪ মে, ২০২৩: বিশ্বে প্রথম সারির অটোমোবাইল প্রস্তুতকারক টাটা মটরস এবং এর অনুমোদিত পরিবেশক নিটল মটরস বাংলাদেশে নতুন Tata LPO 1616 বাস চেসিস উদ্বোধন করেছে। আন্তঃনগর এবং দূরপাল্লার বাস হিসেবে Tata LPO 1616 দেবে সেরা পারফরম্যান্স, আরামদায়ক ভ্রমণের অভিজ্ঞতা এবং সহজে বাসের মালিক হবার দুর্দান্ত সুযোগ। বাসটি তৈরির সময় টাটা মটরসের প্রাথমিক মনোযোগ ছিল পারফরম্যান্স এবং ড্রাইভএবিলিটির উপর। ফলে এটি হয়ে উঠেছে জ্বালানী সাশ্রয়ী এবং যাত্রী ও চালক উভয়ের জন্য আরামদায়ক। পাশাপাশি এই বাস পরিবহন মালিকদের মুনাফা বাড়িয়ে দেবে এবং তারা কম খরচে এর মালিক হতে পারবেন।

বাস উদ্বোধন বিষয়ে, জনাব অনুরাগ মেহরোত্রা, ভাইস প্রেসিডেন্ট, ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস অ্যান্ড স্ট্র্যাটেজি, কমার্শিয়াল ভেহিকেল বিজনেস, টাটা মটরস বলেন, “বাংলাদেশে বাণিজ্যিক গাড়ির সবচেয়ে বড় ব্র্যান্ড হিসেবে টাটা মটরস আধুনিক মবিলিটি স্যলুশনের মাধ্যমে এদেশে স্বতন্ত্র সেবা প্রদান করে আসছে। Tata LPO 1616 বাস প্ল্যাটফর্মটি আমাদের সেইসব সম্মানিত ক্রেতাদের ক্রমবর্ধমান চাহিদা মেটাতে ডিজাইন করা হয়েছে, যারা চান একটি ভালো পারফরম্যান্স এবং সেই গাড়ি থেকে অধিক মুনাফা করতে চান আর স্বল্প খরচে সেই বাসটির মালিক হতে চান। টাটা মটরসের বাণিজ্যিক গাড়ি বহরের এই নতুন গাড়ির সাথে দেশব্যাপী নিটল মটরসের উৎকৃষ্ট মানের সেবা প্রদান অব্যাহত থাকবে। আমরা আত্মবিশ্বাসী যে আমাদের নতুন এই পণ্যটি পরিবহন মালিকদের জন্য অধিক লাভজনক হবে এবং যাত্রীদের জন্য হবে স্বাচ্ছন্দ্যময়।

নতুন বাসের উদ্বোধন নিয়ে মন্তব্য করতে গিয়ে, নিটল মটরস লিমিটেডের চেয়ারম্যান জনাব আব্দুল মাতলুব আহমাদ বলেন, “আমরা এদেশে টাটা মটরসের সর্বশেষ সংযোজন Tata LPO 1616 বাস চেসিস পরিচয় করিয়ে দিতে পেরে আনন্দিত। নিটল মটরস টাটা মটরসের গর্বিত পরিবেশক
এবং আমরা নিশ্চিত যে এই নতুন পণ্যটি অটোমোবাইল শিল্পে একটি গেম চেঞ্জার হবে।আমরা আমাদের গ্রাহকদের গুণগত মানের পণ্য এবং সেবা প্রদান করতে সবসময় প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। আমরা বিশ্বাস করি যে টাটা মটরস এর বাণিজ্যিক গাড়ির লাইন-আপে নতুন যোগ হওয়া এই বাহনটি গ্রাহকদের প্রত্যাশাকে ছাড়িয়ে যাবে।

Tata LPO 1616 প্রমাণিত এবং নির্ভরযোগ্য Cummins 5.9L ইঞ্জিন দ্বারা চালিত, একটি G-600 গিয়ারবক্সের সাথে সংযুক্ত, যা 1400rpm এ 160hp শক্তি এবং 569Nm টর্ক উৎপন্ন করে৷ গাড়িটি বিভিন্ন ধরনের বডি বিল্ডিং এর সুবিধার জন্য একটি সোজা ফ্রেমের চ্যাসিস এবং ইনসুলেটেড ফ্রন্ট এন্ড কাঠামোসহ সরবরাহ করা হয়, যা অনেক ধরনের অ্যাপ্লিকেশনের জন্য উপযুক্ত।
চেসিসটি 5700 মিমি হুইলবেসে পাওয়া যাচ্ছে,যার সাথে একটি শক্তিশালী ওয়েভেলার সাসপেনশন এবং ইন্টিগ্রাল হাইড্রোলিক পাওয়ার-সহায়ক টিল্ট এবং টেলিস্কোপিক টাইপ স্টিয়ারিং রয়েছে।

মূল বৈশিষ্ট্য – Tata LPO 1616

১) এটি দেয় আরামদায়ক ভ্রমণের অভিজ্ঞতা এবং সহজে বাসের মালিক হবার দুর্দান্ত সুযোগ।
২) G-600 গিয়ারবক্সসহ পরীক্ষিত কামিন্স 5.9L ইঞ্জিন যুক্ত
৩) 1400rpm-এ 160hp শক্তি এবং 569Nm টর্ক
৪) টিল্ট এবং টেলিস্কোপিক টাইপ ইন্টিগ্রাল হাইড্রলিক পাওয়ার অ্যাসিস্টেড স্টিয়ারিং যুক্ত ওয়েভেলার সাসপেনশন
৫) 5700mm হুইলবেসে পাওয়া যাচ্ছে
৬) দেশ সেরা বিক্রয়োত্তর সেবার সাথে সহজলভ্য স্পেয়ার পার্টসের নিশ্চয়তা।

টাটা মটরস
১২৮ বিলিয়ন ডলারের টাটা গ্রুপের অংশ টাটা মটরস লিমিটেড, যেটি বর্তমানে ৩৭ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের একটি প্রতিষ্ঠান এবং বিশ্বের অটোমোবাইল প্রস্তুতকারকদের মধ্যে প্রতিনিধিত্বকারী কোম্পানি, যা কার, ইউটিলিটি ভেহিক্যালস, পিকআপ, ট্রাক, এবং বাস তৈরি করে, পাশাপাশি প্রদান করছে বিভিন্ন ধরনের সমন্বিত, স্মার্ট ও ই- মোবিলিটি সল্যুশনস। “কানেক্টিং এসপিরেশন্স” এই প্রতিপাদ্যকে ব্রান্ড প্রমিসের মূল জায়গায় রেখেছে টাটা মটরস এবং এটি বর্তমানে ভারতের বাণিজ্যিক গাড়ির ক্ষেত্রে মার্কেট লিডার ও প্রাইভেট কারের ক্ষেত্রে প্রথম তিনের মধ্যে অবস্থান করছে।

টাটা মটরস সবসময়ই চেষ্টা করে আসছে নতুন নতুন পণ্য নিয়ে আসতে, যেগুলো নতুন প্রজন্মের ক্রেতাদের কল্পনাকে নাড়া দেবে এবং এই গাড়ি গুলোর ডিজাইন করা হয় স্টেট অফ দ্যা আর্ট ডিজাইন এবং আর এন্ড ডি সেন্টারগুলোতে ( ইন্ডিয়া, ইউকে, ইউএস, ইতালি এবং দক্ষিণ কোরিয়ায় অবস্থিত)। প্রকৌশল ও প্রযুক্তি নির্ভর অটোমোটিভ সল্যুশন উপর গুরুত্ব প্রদান করে, কোম্পানি তার উদ্ভাবনী প্রচেষ্টাকে উদাহরণমূলক প্রযুক্তি তৈরির জন্য ব্যবহার করছে যেগুলো হবে স্থায়ী এবং মার্কেট ও গ্রাহকদের প্রত্যাশার সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ। টাটা মটরস ইন্ডিয়াতে ইলেকট্রিক গাড়ির রূপান্তর ব্যবস্থার প্রবর্তক।
একটি শক্তিশালী গ্লোবাল নেটওয়ার্কের মাধ্যমে টাটা মটরস তার অপারেশন চালাচ্ছে ইন্ডিয়া, ইউকে, দক্ষিণ কোরিয়া, থাইল্যান্ড, সাউথ আফ্রিকা এবং ইন্দোনেশিয়ায়। টাটা মটরসের বাণিজ্যিক ও প্যাসেঞ্জার ভেহিক্যালগুলো বাজারজাত হচ্ছে আফ্রিকা, মধ্যপ্রাচ্য, দক্ষিণ ও দক্ষিণ পূর্ব এশিয়া, অস্ট্রেলিয়া, দক্ষিণ আমেরিকা, রাশিয়া এবং অন্যান্য CIS দেশগুলোতে।

নিটল মটরস
নিটল নিলয় গ্রুপের প্রধান অংগ সংস্থা হলো নিটল মটরস লিমিটেড, যা ১৯৮৮ সাল থেকে বাংলাদেশে টাটা মটরসের সহযোগী হিসেবে কাজ করে আসছে এবং সবচেয়ে বেশি মার্কেট শেয়ার নিয়ে প্রতিষ্ঠানটি দেশের বানিজ্যিক গাড়ির জগতে প্রতিনিধিত্ব করে আসছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.